More
    Home সারাদেশ মুন্সিগঞ্জ জেলা সদর ককটেল বিস্ফোরণে সরগরম আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ব‍্যস্ত

    মুন্সিগঞ্জ জেলা সদর ককটেল বিস্ফোরণে সরগরম আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ব‍্যস্ত

    শেখ মো:সোহেল রানা মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি : মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মোল্লাকান্দি ইউনিয়ন এক আতঙ্কের নাম। ককটেল ও গুলির স্বর্গরাজ্য বললে ভূল হবে না। তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করেও ককটেল ও গুলি ঝনঝনানির আওয়াজ পাওয়া যায়। এই এলাকার জনসাধারণ সব সময় ককটেল বিস্ফোরণের আতঙ্কে থাকে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হস্তক্ষেপের কারনে কিছু দিন বন্ধ থাকলেও আবার শুরু হয় অবৈধ অস্ত্রের প্রদর্শনী।

    সাময়িক ভাবে বন্ধ থাকার পরে আবারো আতঙ্কের জনপথে রুপ নিচ্ছে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মোল্লাকান্দি ইউনিয়ন।

    গত ৮ই অক্টোবর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের মুন্সী কান্দি গ্রামে চলে ককটেল বিস্ফোরণ ও গুলি। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলো পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

    স্থানীয়দের তথ্য সুত্রে জানা যায়, আধ্যিপত্ত বিস্তারকে কেন্দ্র করে গত বৃহস্পতিবার রাতে বিএনপি নেতা উজির আলির লোকজন ও আওয়ামীলীগ নেতা ও ইউপি সদস্য স্বপন দেওয়ানের লোকজন উভয়পক্ষ ব্যাপক ককটেল বিস্ফোরণ ও গুলি চালিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে এবং উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি।

    ইউপি সদস্য স্বপন দেওয়ান জানান, গত বৃহস্পতিবার রাতে হঠাৎ করে উজির আলীর লোকজন আমার গ্রামের উপর অর্তকিত হামলা চালিয়ে শতাধিক ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। কেন আর কি কারনে তারা এমন কাজ করলো তা এখনো জানি না।

    এ বিষয়ে বিএনপি নেতা উজির আলীকে একাধিক বার মুঠফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করেও তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

    ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মহসিনা হক কল্পনা বলেন, আধিপত্ত বিস্তারকে কেন্দ্র করে ইউপি সদস্য স্বপন দেওয়ানকে মেরে ফেলার জন্য ষড়যন্ত্র চলছে। তাই রাতে হঠাৎ করে এই হামলা চালানো হয়েছে। হামলার সাথে যারা জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের কাছে আইগত সহায়তা চান তিনি।
    গতকাল শুক্রবার ককটেল ও গুলির ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশ মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের ম্ন্সুীকান্দী, বেহেরকান্দী, নোয়াদ্দা ও লক্ষীদেবীসহ আশপাশের এলাকায় বিশেষ অভিযান চালায়। অতিরিক্ত. পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) খন্দকার আশফাকুজ্জামান এর নেতৃত্বে অভিযানে অংশগ্রহন করেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আনিচুর রহমান, ওসি অপারেশন শেখ আবু হানিফ, এস আই ইব্রাহীমসহ অর্ধ শতাধিক পুলিশ সদস্য।

    এ বিষয়ে মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আনিচুর রহমান বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনার খবর পাওয়ার সাথে সাথে ঘটনাস্থলের পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনা হয়েছে এবং শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) খন্দকার আশফাকুজ্জামানের নেতৃত্বে ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তারের বিশেষ অভিযান চালানো হয়। এসব ঘটনার সাথে যারা জড়িত থাকবে কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা বলেও হুশিয়ারী দেন। তিনি আরো বলেন, আগামীতেও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে মোল্লাকান্দি ইউনিয়নে অভিযান অব্যাহত থাকবে।সাধারন মানুষ ভয় না পেতে বলেন এবং তথ্য সাহায্য করতে বলেন।

    Most Popular

    তথ্যমন্ত্রীর রোগমুক্তি কামনায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে দোয়া মাহফিল

    চট্টগ্রাম : তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ করোনা পজিটিভ হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তথ্যমন্ত্রীর আশু রোগমুক্তি কামনায় আজ দোয়া মাহফিল ও মুনাজাতের আয়োজন করা হয়। দোয়া...

    কিশোরগঞ্জে আগুনে পুড়ে গেছে ৪ ভাইয়ের বাড়ী,১০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি

    মোঃ লাতিফুল আজম, কিশোরগঞ্জ নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলা সদর ইউনিয়নের রূপালী কেশবা গ্রামে একই পরিবারের ৪ ভাইয়ের বাড়ী পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে...

    এমভি আব-এ জমজম লঞ্চের স্টাফ কেবিন থেকে তরুণীর লাশ উদ্ধার

    চাঁদপুর, ২৩ অক্টোবর- চাঁদপুরে যাত্রীবাহী এমভি আব-এ জমজম লঞ্চের দ্বিতীয় তলার স্টাফ কেবিন থেকে এক তরুণীর লাশ উদ্ধার করেছে নৌ-পুলিশ। গতকাল...

    দৌলতখানে বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সচিব ও সাবেক মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এর জন্মদিন পালিত

    মোঃ ছিদ্দিক ভোলা প্রতিনিধি : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর রাজনৈতিক সচিব ও ৬৯ এর গন অভ্যুথানের মহানায়ক, গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক...