More
    Home অপরাধ মহেশখালীর হোয়ানকে প্রকাশ্যে জমি জবরদখলের চেষ্টা! আহত ১

    মহেশখালীর হোয়ানকে প্রকাশ্যে জমি জবরদখলের চেষ্টা! আহত ১

    মহেশখালী প্রতিনিধি : মহেশখালী উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নের ডেইল্যাঘোনা এলাকায় সেনা সদস্যের ব্যক্তি মালিকানাধীন জমি জবরদখলের চেষ্টায় মারিয়া হয়ে উঠেছে স্থানীয় নব্য একটি সন্ত্রাসী বাহিনী। গেলো শনিবার (১৬ই আগস্ট) প্রথম দপায় রাতের অন্ধকারে ভোরে ৫০-৭০ টি সুফারি গাছ কেটে সাবাড় করার পর দ্বিতীয় দপায় আজ বুধবার (১৯ই আগস্ট) প্রকাশ্যে নব্য সন্ত্রাসী মোরশেদ আলমের নেতৃত্বে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে আবারো একি জায়গায় বাকি সুপারী গাছ ও বাঁশঝাড় কেটে জমি জবরদখলের চেষ্টা করে তারা। এদিকে পরিস্থিতি উত্তপ্ত দেখে মহেশখালী থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে।

    জানা যায় ২০০৮ সালে চন্দ্র মহাজন ও কৃষ্ণ চরণের ওয়ারিশগণ থেকে ডেইল্যাঘোনা পুকুর ও সংলগ্ন ৯৩ শতক জমিটি খরিদ করেন ছনখোলা পাড়া এলাকার আবদুল হামিদ মেম্বারের পুত্র কামরুজ্জামান ও তার ছোট ভাই সেনা সদস্য বদরুজ্জামান। যার নিলামমূলে এমআর ৮৯ খতিয়ান, ও বিএস ২০০ খতিয়ান, যার দলিল নং- ৪৮৫ এবং সৃজিত খতিয়ান নং ৪৭৫। সেই থেকে জমিটি শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখলে রয়েছে দুই সহোদর কামরুজ্জামান ও সেনা সদস্য বদরুজ্জামান। এদিকে তাদের ভোগ দখলীয় অন্যান্য জমি ও অন্যান্য জমি নিয়ে একটি মামলা করেন মোরশেদ গং। তা নিয়ে কামরুজ্জামান ও মোরশেদ আলম গং এর জমি সংক্রান্ত বিরোধ আছে। যা আদালতে বিচার প্রক্রিয়াধীন আছে।

    স্থানীয় এলাকাবাসী মোঃ তারেক জানান এভাবেই যদি প্রকাশ্যেই জমি দখল করতে আসা সন্ত্রাসীদের কে চিহ্নিত করে আইনের আওয়াতায় আনার দাবি জানান।

    জাকের জানান,হঠাৎ একদল সন্ত্রাসী গাছ,বাঁশ ও পানের বরজ ভাংচুর করার সময় প্রতিপক্ষ ভেবে ছনখোলা পাড়ার বাসিন্দা হওয়ায় আমাকে মকসুদ,নুর মোহাম্মদ, হাবিবুর মারধর করে আহত করে।

    কামরুজ্জামান অভিযোগ করে বলেন, আমার খরিদকৃত জায়গায় চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা বারবার হানা দিচ্ছে, প্রথমে প্রকাশ্যে দোকান ভাঙচুর করেছে, এরপর রাতের অন্ধকারে সুপারী গাছের চারাগাছ কেটে পেলেছে এবং সর্বশেষ আজ আবারো বাকি থাকা চারাগাছ ও বাঁশঝাড় কেটে সশস্ত্র সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা চালিয়েছে। এতে একজন আহতও হয়েছে। আমি তাদের বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় চেয়ে সংলিষ্টদের সহযোগিতায় কামনা করছি।

    এদিকে অভিযুক্ত মোরশেদ আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান কে বা কারা গাছ গুলো কাটছে আমরা জানি না। তবে তাদের সাথে একটি জমি নিয়ে আমাদের বিরোধ আছে। যা আদালতে বিচারাধীন আছে। যেটি আদালতে ও নিষেধাজ্ঞা আছে। তারপরও আদালতের নিষেধাজ্ঞা না মেনে দোকান নির্মাণ করে আসলে আমরা বাঁধা দিয়।

    স্থানীয় ইউপি মেম্বার আব্দুল করিম জানান, দুই পক্ষের বিষয়টি আদালতে বিচার প্রক্রিয়াধীন, তবে একটি পক্ষ জবরদখলের জন্য মারিয়া হয়ে উঠেছে, বারবার অঘটন করার চেষ্টা করতেছে। তাই এই মুহুর্তে প্রশাসন জরুরি ভিত্তিতে হস্তক্ষেপ না করলে শান্তি শৃঙ্খলা বিঘ্ন সহ রক্তক্ষয়ী হানাহানির শঙ্কা রয়েছে।

    ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে আসা মহেশখালী থানার এসআই বিপ্লব বড়ুয়া আপাতত কোন পক্ষদ্বয়কে কোন প্রকার কাজ না করার জন্য বলেন। উভয় পক্ষকে মহেশখালী থানায় যোগাযোগ করে সমাধানের জন্য অনুরোধ করেন।

    Most Popular

    ক্ষোভ বাড়ছে বাংলাদেশসহ মুসলিম দেশগুলোতে, ফরাসিদের বিশেষ সতর্কতা

    ঢাকা, ২৭ অক্টোবর- মহানবী (স)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন এবং ইসলাম ধর্ম নিয়ে ফরাসি প্রেসিডেন্টের বিরূপ মন্তেব্যের জেরে ক্ষোভ বাড়ছে মুসলিমদের মধ্যে। একারণে বাংলাদেশসহ বেশ...

    চুলে রঙ করছেন, বাড়ছে ক্যান্সারের ঝুঁকি!

    ফ্যাশনে প্রিয় তরুণ-তরুণীদের চুলে রঙ এখন অভ্যাসে দাঁড়িয়েছে। কালো চুল দেখতে ভালো হলেও চুল রঙ করা তাদের নেশায় পরিণত হয়েছে। তবে এই চুল...

    ত্রিশালের একজন সফল জনপ্রতিনিধি ও দক্ষ সংগঠক চেয়ারম্যান কামাল

    আরিফ রববানী, ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার ৩নং কাঠাল ইউনিয়নের উন্নয়নের রুপকার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন কামালের জনপ্রিয়তায় শুকুনের চোখ পড়েছে। আগামী নির্বাচনে...

    কেককাটা ও মিলাদের মাধ্যমে হাইমচরে যুবদলের ৪২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

    মোঃ জাহিদুল ইসলাম, হাইমচর বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের ৪২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে হাইমচরে জমকালো মনোমুগ্ধকর আয়োজনে কেককাটা, আলোচনা সভা ও মিলাদ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল ২৭...