More
    Home সারাদেশ নিজেরা নিজেরা ঝামেলা তৈরি করে আমাদের উপর দায়ভার দিবেন না: আ.লীগের মনু

    নিজেরা নিজেরা ঝামেলা তৈরি করে আমাদের উপর দায়ভার দিবেন না: আ.লীগের মনু

    ঢাকা: ঢাকা ৫ আসনের আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী মনিরুল ইসলাম মনু বিএনপির প্রার্থী সালাউদ্দিনকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, বিএনপির এই নেতা আমাদের এলাকার বহিরাগত। তাছাড়া তিনি যখন এমপি ছিলেন এলাকার মানুষ তখন পানির জন্য হাহাকার করেছিলেন। তখন সালাউদ্দিন সাহেব পানির বাবদ পুলিশের কাছ থেকে অস্ত্র নিয়ে সাধারন মানুষকে ভয় দেখিয়ে ছিলো। সাধারণ মানুষ তার এই ভয় কে জয় করে, সালাউদ্দিন সাহেব কে দৌড়ানি দিয়েছিল।

    মনু অভিযোগ করে বলেন, আজ আমি ৬০ নং ওয়ার্ড পলাশপুর এলাকার বড় মসজিদে নামাজ পড়তে চেয়েছিলাম কিন্তু হলো না, পুলিশের ডিসি আমাকে ফোন করে বললেন ভাই আপনি ওই মসজিদে নামাজ পড়তে যাবেন না। ওখানে সালাউদ্দিন সাহেব দু-সপ্তাহ আগে নামাজ পড়বেন বলে অনুমতি নিয়েছেন।

    মনিরুল ইসলাম বলেন, আমি কখনো মিথ্যা বলি না কোন ধরনের সহিংসতার রাজনীতি পছন্দ করিনা। এ শিক্ষা আমার নেত্রী আমার সংগঠন দেয়নি। নির্বাচন কমিশনার আমাকে জিজ্ঞেস করেছিলো আপনি কিভাবে নির্বাচন করতে চান। আমি বলেছিলাম আমরা সুষ্ঠু নির্বাচন করবো প্রতিটা প্রার্থী নির্দ্বিধায় কাজ করবেন কোন ধরনের সহিংসতার মধ্যে যাবে না। নির্বাচন কমিশনার আমার এই কথা শুনে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছিলেন।

    মনিরুল বলেন, সালাউদ্দিন সাহেবকে নির্বাচন কমিশনার জিজ্ঞেস করেছিলেন আপনি কিভাবে নির্বাচন করতে চান। তিনি বলেছিলেন কোন লেভেলফিল্ড নাই তারা আমাদের দিকে বাঁকা চোখে তাকায় নির্বাচন করার পরিবেশ নাই। আমি বলতে চাই কিভাবে আপনি নির্বাচন করার পরিবেশ নাই এটা বুঝলেন? আপনি মাঠে না থেকেই বিভিন্ন অভিযোগ দিচ্ছেন আমরা না কি তার নির্বাচনী প্রচারণায় হামলা করেছি। মনিরুল ইসলাম মনি কখনো কারোর ক্ষতি করে নাই। বিএনপি’র বহিরাগত প্রার্থীর এসব অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা।

    আজ (২ অক্টোবর শুক্রবার) ৬০,৬১,৬২ নং ওয়ার্ড এলাকায় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উদ্যোগে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায় এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

    এর আগে সকাল সাড়ে নয়টার পর তিনি ৬১,৬২ ওয়ার্ড এলাকায় গণসংযোগ করেন তিনি।

    প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি মুক্তিযোদ্ধার ইতিহাস এবং তার পরিবারের করুন ইতিহাস নিয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে আলোচনা করেন।

    কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, আমি আপনাদের ভাই আপনারা আমার ভাই, উপরে আল্লাহ নিচে আপনারা। ইভিএমে এবার নির্বাচন হবে। আপনারা ভোট কেন্দ্রে যাবেন এবং ভোট দিবেন। আপনারা ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার সময় একে অপরকে সঙ্গে নিয়ে যাবেন এবং রেজাল্ট দেওয়ার আগ পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন। ইনশাল্লাহ আমাদের জয় হবে। আমার শক্তি আল্লাহ আর জনগণ।

    বিরোধী দলের প্রার্থী সালাউদ্দিনের উদ্দেশ্যে মনু বলেন, নির্বাচন কমিশন যখন জিজ্ঞেস করলেন আপনি প্রচার-প্রচারণা কিভাবে করবেন তখন তিনি বললেন তাদের জন্য তো আমরা প্রচার-প্রচারণা সঠিকভাবে করতে পারবো না। তখন নির্বাচন কমিশন তাকে বলেছিল তাহলে আপনার নির্বাচন করার সক্ষমতা কি নাই? আপনার কিছু করার ক্ষমতা নাই তাহলে আপনি কি নির্বাচন করবেন বলেন। আমি সালাউদ্দিন সাহেব কে বলতে চাই নিজেরা নিজেরা ঝামেলা তৈরি করে আমাদের উপর দায়ভার চাপাবেন না।

    মনিরুল ইসলাম বলেন, শ্যামপুরে ২০১৮ সালে তিনি নির্বাচন করেছিল তার নির্বাচন বাজেয়াপ্ত হয়েছিলো তার পরিবার তাকে ভোট দেই নাই। তারা আবার এক্সপোর্ট করছে আমাদের এই যাত্রাবাড়ীতে। ভাড়াটিয়া প্রার্থী হিসেবে তারা আমাদের এলাকায় সালাউদ্দিন সাহেব কে দিয়েছে। সালাউদ্দিন সাহেব কে এলাকার মানুষ চেনে। তিনি স্কুল শিক্ষককে বিভিন্নভাবে লাঞ্ছনা করেছেন। বিভিন্ন সময় উনার স্বার্থের জন্য মসজিদের ইমাম সাহেবের দাড়ি ধরে টানা হেচড়া করেছেন। সেই বাজে প্রার্থীকে আমাদের এলাকায় নির্বাচন করার জন্য বিএনপি মনোনীত করেছে।

    মনির ইসলাম বলেন, যদি আমি এলাকায় থেকে নির্বাচিত হয়, আপনারা যদি ভোট কেন্দ্রে জান ভোট দিতে, আমাকে নির্বাচিত করেন তাহলে আমি সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখব। ডেমরা থানায় ভালো উচ্চ বিদ্যালয় নাই এখানে কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও এলাকার নানান অসুবিধা আছে। আমি নির্বাচিত হলে ইনশাল্লাহ সমস্যাগুলো সমাধান করার চেষ্টা করবো। এলাকায় দুইটা সরকারি কলেজ দরকার সরকারি কলেজ নাই তাছাড়া এ যাত্রাবাড়ী ৫ আসনে স্থানীয় যত সমস্যা আছে সকল সমস্যা সমাধান করার লক্ষ্যে কাজ করে যাবো। যেকোনো মূল্যে আমি সরকারের হাতে পায়ে ধরে এ কাজগুলো করবো।

    তিনি বলেন, আমার নেত্রী আমাকে অনেক আদর করে অনেক মায়া করেন। তিনি আমার খোঁজখবর নিচ্ছেন সবসময়। আমি সততার সাথে এলাকার উন্নয়নের জোয়ার অব্যাহত রাখব সালাউদ্দিন সাহেব যদি এমপি হয়! তাহলে তো সে এলাকায় কোন কাজ করতে পারবে না। সেতো বহিরাগত সে আমাদের কি দিবে? তাকে দিলে আরো ভালো হয়।

    তিনি বলেন, এত কষ্ট করে আপনারা আমার সঙ্গে আছেন আপনাদের সবাইকে ধন্যবাদ আপনারা ভোট কেন্দ্রে যাবেন এবং সবাইকে ভোট দিতে আশ্বস্ত প্রকাশ করবেন। আপনারা ভোট কেন্দ্রে গেলে আমি নির্বাচিত হব আপনাদের ভোটে।

    তিনি বলেন, আমার সর্বশেষ কথা হচ্ছে আমি এমপি হওয়া মানে আপনারা সবাই এমপি। আমি মনু আপনারাও সবাই মনু। আমি আগেও আপনাদের সঙ্গে ছিলাম এখনো আছি । আমি প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করবোনা আপনাদের পাশে থাকব সব সময় ইনশাল্লাহ।

    উপ-নির্বাচনের এই আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক হারুনুর রশিদ মুন্না, ৪৯ নং এলাকার কাউন্সিলর হাজী আবুল কালাম অনু, আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন গেসু, নির্বাচন কমিটির সদস্য সচিব এম এ আর এস মহাসিন, ৫৯ নং ওয়ার্ড এলাকায় কাউন্সিলর আকাশ ভৌমিক, ৬০,৬১,৬২ কাউন্সিলর সাহিদা, দুনিয়া আমি লীগের সাধারণ সম্পাদক শান্ত, এলাকার নেতা রইচ, আবুল কালাম, কাজী মোমি,কাজি মাহি প্রমুখ।

    Most Popular

    সু চির নেতৃত্বাধীন দলের তিন প্রার্থীকে অপহরণ করল আরাকান আর্মি

    নেপিডো, ২০ অক্টোবর- অপহরণ করা হয়েছে মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির নেতৃত্বাধীন দলের তিন প্রার্থীকে। পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যে থেকে তাদের...

    চাঁদপুর পৌরসভার নব-নির্বাচিত মেয়র-কাউন্সিলরদের শপথ শনিবার

    মোঃনজরুল ইসলাম, চাঁদপুর প্রতিনিধি : চাঁদপুর পৌরসভার নবনির্বাচিত পরিষদের শপথগ্রহণ আগামী শনিবার (২৪ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন সকাল ১১টায় চাঁদপুরে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি...

    সাংস্কৃতিক অঙ্গনের মেধাবী মুখ মাধব চন্দ্র দাস

    রাজু আহমেদ, নাটোর: নাটোরের সিংড়া উপজেলার বিলদহর গ্রামে জন্ম নেয়া মাধব সাংস্কৃতিক অঙ্গনের নক্ষত্র। শুধু নিজ এলাকায় নয়, আলো ছড়াচ্ছেন জেলায় জেলায়। জেলার ব্যপ্তি...

    মূল্যবোধের অবক্ষয়: অনেকখানি পিছিয়ে আছি দেশের প্রচলিত আইন

    মো. জাহাঙ্গীর আলম : সমাজবিজ্ঞানীরা হয়তো ভালো ব্যাখ্যা দিতে পারবেন। তারপরও আমার উপলব্ধি হলো ব্যাপক সামাজিক সচেতনতা অপরাধ কার্যক্রম বিস্তার অনেকাংশে নিরুৎসাহিত করতে পারে।...