More
    Home জাতীয় নাটোরে সাদিয়া হত্যা মামলার বাদীকে প্রাণনাশের হুমকি -Deshebideshe

    নাটোরে সাদিয়া হত্যা মামলার বাদীকে প্রাণনাশের হুমকি -Deshebideshe


    নাটোর, ১৩ সেপ্টেম্বর- নাটোরে স্কুলছাত্রী সাদিয়া ইসলাম মৌ’কে বিষ প্রয়োগে হত্যা মামলার আসামিদের এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

    তবে আসামিরা মামলা তুলে নেওয়ার জন্য বাদীকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এছাড়াও বিভিন্ন প্রকার পাল্টা মামলা দায়ের করে বাদীকে হয়রানি করবে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

    জানা যায়, নাটোর শহরের চৌধুরী বড়গাছা এলাকার রিকশা চালক আব্দুল কুদ্দুসের মেয়ে ও বড়গাছা বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সাদিয়া ইসলাম মৌ। আর তার ভাবীর বড় বোন রুপা খাতুন ওরফে রূপ। রুপা নারী হলেও পুরুষ সেজে রূপ নাম দিয়ে টিকটকে ভিডিও আপ করে। আর পুরুষের রূপ ধরে রুপা কৌশলে সাদিয়াকে তার সাথে সমকামিতায় জড়িয়ে নেয়। তাদের সমকামিতায় এক পর্যায়ে ২১ আগস্ট পালিয়ে যায় তারা। 

    গত ২৪ আগস্ট সকালে রুপা সাদিয়াকে নিয়ে তার নিজ বাড়িতে আসে। ওই দিন রুপা ও সাদিয়াকে কেউ গ্যাস ট্যাবলেট (ইদুর মারার বিষ) খাইয়ে হত্যাচেষ্টা করে।

    আহত অবস্থায় তাদের নাটোর সদর হাসপাতালে আনে রুপার পরিবারের সদস্যরা। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে মারা যায় সাদিয়া। তবে ভাগ্যক্রমে বেঁচে যায় রুপা। ২৪ আগস্ট রাতে সাদিয়ার মৃত্যু হয়। আর অনেকটা গোপনেই ২৫ আগস্ট দাফন করা হয় সাদিয়ার লাশ।

    শনিবার (২৯ আগস্ট) এ ঘটনা জানাজানি হলে এলাকাবাসী ও সাদিয়ার স্বজনরা সাদিয়াকে হত্যার অভিযোগ এনে দুপুরে কানাইখালী পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে মানববন্ধন করেন। তারা ঘটনার সাথে জড়িত সকলের বিচার দাবি করেন।

    আরও পড়ুন: সুমাইয়ার ময়নাতদন্ত রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান করে মানববন্ধন

    ৩০ আগস্ট নাটোর সদর থানায় নিহত স্কুলছাত্রী সাদিয়ার বাবা রিকশাচালক আব্দুল কুদ্দুস বাদী হয়ে সমকামী রুপা খাতুন ওরফে টিকটিক রুপস, তার বাবা রুবেল হোসেন, মা ববিতা হোসেন, দাদী বেনু আক্তার ও বোন রিতা খাতুনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

    এদিকে, মামলা দায়েরের ১২ দিন পেরিয়ে গেলেও একজন আসামিকেও গেফতার করতে পারেনি পুলিশ। তবে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য আসামিরা বাদী ও তার পরিবারের সদস্যদের মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

    মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সদর থানার ওসি (অপারেশন) আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, সাদিয়া হত্যা মামলার তদন্ত কাজ চলছে। আসামি রুপা খাতুন ওরফে টিকটক রুপস নিজেও বিষ খেয়েছিল। এখনো সুস্থ হয়নি। সুস্থ হলে তাকেসহ বাকি আসামিদের গ্রেফতার করা হবে। তাদের ধরার জন্য সব রকমের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। আসামিরা যেখানেই থাকুক অল্প সময়ের মধ্যেই ধরা পড়বে।

    সূত্র : বিডি প্রতিদিন
    এম এন  / ১৩ সেপ্টেম্বর



    Most Popular

    যুব বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক আকবরের সামনে নতুন লক্ষ্য

    ঢাকা, ১ নভেম্বর- বাংলাদেশকে প্রথমবারেরমত বিশ্বজয় করার গৌরব এনে দিয়েছিলেন তিনি এবং তার নেতৃত্বাধীন যুব ক্রিকেট দল। সেই আকবর আলী এখন নিজেকে গড়ে...

    স্ত্রীর মর্যাদা আদায়ে স্বামীর বাড়িতে অনশন করছে স্ত্রী!

    মৌলভীবাজার, ১ নভেম্বর- মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলায় স্ত্রীর মর্যাদা আদায়ে স্বামীর বাড়িতে অনশন করছে এক স্ত্রী। শ্রীমঙ্গল উপজেলার উত্তরসুর গ্রামের এক...

    টাকা শোধ দিতে না পারায় মহিলার শিশুকে সিগারেটের ছ্যাঁকা

    নয়াদিল্লি, ৩১ অক্টোবর- মা টাকা ধার নিয়েছিল। সময়মতো দিতে পারেনি। আর সে কারণে তাঁর দু’‌বছরের কন্যা সন্তানের উপরেই অকথ্য অত্যাচার করার...

    সুসক ৯৪ ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটি গঠিত সভাপতি আমানুুল, সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম

    মুরাদ মিয়া, স্টাফ রিপোর্টার : সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজ (সুসক)’র ৯৪ ক্লাব এর ২৭ সদস্য বিশিষ্ঠ নতুন কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়েছে। গত ২৮ অক্টোবর...